অবিলম্বে পাটকল শ্রমিকদের দাবি মেনে নিন–বাম জোট

20

যুগবার্তা ডেস্কঃ অনশনরত পাটকল শ্রমিক আব্দুস সাত্তার ও সোহরাব হোসেনের মৃত্যুর প্রতিবাদে
বিজেএমসি কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে বাম গনতান্ত্রিক জোট।

আজ জাতীয় প্রেসক্লাব থেকে মিছিল নিয়ে
মতিঝিলস্থ আদমজি কোর্টের বিজেএমসি সামনে সমাবেশ করে। জোটের সমন্বয়ক আবদুল্লাহ ক্বাফী রতনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সিপিবি’র সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম, বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রাজেকুজ্জামান রতন, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকী, ইউসিএলবি’র সদস্য আব্দুস সাত্তার, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য আকবর খান, বাসদ (মার্কসবাদী)’র সদস্য ফখরুদ্দীন কবীর আতিক, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির শহিদুল ইসলাম সবুজ।
বিক্ষোভ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, সিপিবি’র কোষাধ্যক্ষ মাহবুবুল আলম, বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বজলুর রশীদ ফিরোজ, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু প্রমুখ। সভা পরিচালনা করেন বাসদ নেতা খালেকুজ্জামান লিপন।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকারের ভুলনীতি ও প্রশাসকদের দুর্নীতির কারণে পাটখাত আজ দুর্দশাগ্রস্থ। আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল ও বিশ্ব ব্যাংকের চক্রান্তমূলক পরামর্শ গ্রহণ করে সরকার পাট শিল্পকে ধ্বংস করে দিয়েছে। রাষ্ট্রায়ত্ত পাটখাতকে ব্যক্তিমালিকানায় ছেড়ে দেয়ার জন্য সরকার তার পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করার জন্য ভ্রান্ত নীতি কার্যকর করছে।
নেতৃবৃন্দ বলেন, পাট শিল্পে ২০১৫ সালে ঘোষিত মজুরি কমিশন এখনও বাস্তবায়িত হয়নি। শ্রমিকদের ১৫ সপ্তাহের মজুরি বকেয়া রয়েছে। অবসরে যাওয়া শ্রমিক এখনো তাদের পিএফ’র টাকা পায়নি। শ্রমিকদের বেলায় সরকার নিষ্ঠুর। পাওনা পরিশোধের টাকা নাই। কিন্তু আমলাদের সুযোগ সুবিধা দ্বিগুণ করে দেয়া হয়েছে। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে শ্রমিকদের পাওনা মজুরি ও পিএফ পরিশোধ করার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান। তারা নতুন মেশিন দিয়ে পাটকলসমূহ আধুনিকায়ণের জন্য বাজেটে অর্থ বরাদ্দের দাবি জানান।
নেতৃবৃন্দ বলেন, শ্রমিকরা পাওনা মজুরির দাবিতে অনশন করে মৃত্যুবরণ করছে এটা সহ্য করা যায় না। তারা আব্দুস সাত্তার ও সোহরাব হোসেনের পরিবারের দায়িত্ব গ্রহণের জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান।