অগ্নিদগ্ধ মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাতের মৃত্যু

মাহাবুবুর রহমানঃ বাঁচানো গেলোনা আগুনে দগ্ধ ফেনীর সেনাগাজীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে। আজ রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে তার।

ঢাকা মেডিকেল থেকে জানাগেছে, আজ রাত সাড়ে ৯টার দিকে নুসরাত মারা যান। তার চিকিৎসার সব রকমের চেষ্টাই চলছিল। নুসরাতের সবোর্চ্চ চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে সরকারের পক্ষ থেকেও মনিটরিং করা হচ্ছিলো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার চিকিৎসার নিয়মিত খোঁজ নিচ্ছিলেন। পাঁচ দিন ধরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন ছিলেন নুসরাত।

নুসরাত এ বছর আলিম পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছিলেন। নুসরাত মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলা যৌনহয়রানি করায় গত ২৭ মার্চ সোনাগাজী থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলা তুলে নেয়ার কথা বলে অধ্যক্ষের অনুসারীরা গত ৬ এপ্রিল শনিবার সকাল ১০ টায় ওই মাদ্রাসার তৃতীয় তলায় তাকে ডেকে নিয়ে গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়।

অগ্নিদগ্ধ নুসরাতকে প্রথমে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখান থেকে ফেনী সদর হাসাপাতালে এবং পরে গত শনিবার রাতেই তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
শরীরের ৮০ শতাংশ পুড়ে যায়।